728x90 AdSpace

Latest News

Friday, 27 April 2018

ভাগীরথির বুকে জলপথে অপরাধমূলক কাজকর্ম রোধে লঞ্চের ব্যবহার বিশ বাও জলে


পল্লব ঘোষ,কালনা: ভাগীরথির বুকে জলপথে অপরাধমূলক কাজকর্মের ওপর নজরদারি চালাতে প্রায় সাত মাস আগে জেলা পুলিশের উদ্যোগে নিয়ে আসা হয়েছিল একটি আধুনিক টহলদারি লঞ্চ। কিন্তু সাত মাস অতিক্রান্ত হয়ে গেলেও জলপথ পরিবহন দপ্তরের দেওয়া এই টহলদারি লঞ্চটির ব্যবহার হয়ইনি বলেই অভিযোগ উঠছে। মূলত লঞ্চটি পরিচালনা করার জন্য উপযুক্ত কর্মীর অভাবেই এটি ঠিকমত ব্যবহার করা যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার প্রিয়ব্রত রায়। যদিও কালনা মহকুমা পুলিশ আধিকারিক সান্তনু চৌধুরী জানিয়েছেন, সেই অর্থে লঞ্চটির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন না হলেও প্রয়োজনে এটিকে ব্যবহার করা হয়। বর্তমানে কালনার গঙ্গার ঘাটেই লঞ্চটিকে রাখা রয়েছে। 

প্রসঙ্গত, পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশ সুপার কুনাল আগারওয়াল জানিয়েছিলেন, জলপথে অপরাধমূলক কাজকর্ম কমাতে এবং নিয়মিত নজরদারি চালাতে জলপথ পরিবহন দপ্তরের কাছে আধুনিক একটি লঞ্চ চাওয়া হয়েছিল। সেই আবেদনের ভিত্তিতেই গত বছরের সেপ্টেম্বর মাসে একটি লঞ্চ পাঠানো হয় কালনায়। 

কিন্তু গত সাত মাস অতিক্রান্ত হয়ে গেলেও লঞ্চটি যে অবস্থায় এনে রাখা হয়েছিল,আজও সেই অবস্থায় পরে আছে বলে কালনা ও গঙ্গার ওপর পাড়ে নদীয়া জেলার শান্তিপুরের বাসিন্দাদের অভিযোগ। ফলে গঙ্গা বক্ষে মাটি চুরি, বালি চুরি এবং জলপথে অপরাধমূলক কাজকর্ম রোধে আধুনিক এই লঞ্চের ব্যবহার কার্যত বিশ বাও জলে বলেই মনে করছেন এলাকাবাসী।  
ভাগীরথির বুকে জলপথে অপরাধমূলক কাজকর্ম রোধে লঞ্চের ব্যবহার বিশ বাও জলে
  • Title : ভাগীরথির বুকে জলপথে অপরাধমূলক কাজকর্ম রোধে লঞ্চের ব্যবহার বিশ বাও জলে
  • Posted by :
  • Date : April 27, 2018
  • Labels :
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top