728x90 AdSpace

Latest News

Saturday, 17 March 2018

বাংলার মানুষ ভুলে যায়নি রাজনৈতিক শত্রুতার মর্মান্তিক পরিণতি 'সাইঁ বাড়ি' হত্যাকান্ড


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান:বাংলার বুকে বীভৎস হত্যালীলাগুলির মধ্যে অন্যতম বর্ধমানের সাইঁ বাড়ি হত্যাকান্ড। সিপিআইএম-এর হাতে নিরীহ মানুষের পৈশাচিক এই হত্যালীলা ঘটেছিল আজ থেকে ৪৮ বছর আগে ১৯৭০ সালের ১৭ মার্চ। বর্ধমানের ঢলদীঘি প্রতাপেশ্বর শিবতলা লেনের বাসিন্দা কংগ্রেসের মলয় সাঁই, প্রণব সাঁই এবং তাদের পরিবারের গৃহশিক্ষক জিতেন রায়কে সেদিন কুপিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠেছিল বেশ কয়েকজন সিপিআইএম নেতার বিরুদ্ধে,যাদের মধ্যে কেউ কেউ বাম আমলে মন্ত্রীত্ব পর্যন্ত লাভ করেছিলেন। অভিযুক্তদের তালিকায় ছিল বিনয় কোঙার, নিরুপম সেন, অনিল বসুর মত বাম নেতাদের নাম। যদিও পশ্চিমবঙ্গে বামফ্রন্ট ক্ষমতায় আসার পর এই মামলা খারিজ হয়ে যায়। কিন্তু বাংলার মানুষ আজ ভুলে যায়নি সেদিনের রাজনৈতিক শত্রুতার মর্মান্তিক পরিণতিকে। সাইঁ বাড়ির দেওয়ালের গায়ে সেদিন যে রক্তের দাগ ছিল আজ তা নেই। কিন্তু ভাঙা দেওয়ালের প্রতিটি ইঁটের খাঁজে গেঁথে রয়েছে মায়ের সামনে সন্তানকে নৃশংসভাবে হত্যা করার করুণ কাহিনী।

 সেই কাহিনীকেই আরও একবার স্মরণ করার জন্য শনিবার সাঁইবাড়ি লাগোয়া শহীদ বেদীর সামনে হাজির হয়েছিলেন রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দপ্তরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ, জেলা পরিষদের সভাধিপতি দেবু টুডু, বিধায়ক সুভাষ মণ্ডল, সাঁইবাড়ির ছোট ছেলে উদয় সাঁই, উদয়বাবুর স্ত্রী বর্ধমান পুরসভার তৃণমূল কংগ্রেসের কাউন্সিলার উমা সাঁই সহ জেলা নেতৃত্বরা। তারা এদিন নিহতদের স্মৃতিচারণার পাশাপাশি শহীদ বেদিতে এদিন মাল্যদান করে শ্রদ্ধাজ্ঞাপন করেন। স্বপনবাবু এদিন জানান, ১৯৭০ সালের ১৭ মার্চ সাঁইবাড়ির এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা গোটা বাংলার বুকে নৃশংস্য হত্যালীলা বলে চিহ্নিত হয়ে আছে। 

অন্যদিকে জেলা কংগ্রেসের পক্ষ থেকে এদিন আলাদাভাবে সাইঁ বাড়ির নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়। জেলা কংগ্রেস সভাপতি আভাষ ভট্টাচার্য, কাশীনাথ গাঙ্গুলী প্রমুখরা এদিন শহীদবেদিতে মাল্যদান করে স্মৃতিচারণায় অংশ নেন। 
                                                                                                    ছবি - সুরজ প্রসাদ 
বাংলার মানুষ ভুলে যায়নি রাজনৈতিক শত্রুতার মর্মান্তিক পরিণতি 'সাইঁ বাড়ি' হত্যাকান্ড
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top