728x90 AdSpace

Latest News

Friday, 16 March 2018

উন্নয়ন বাকি থাকলে সেই পঞ্চায়েতের জন্য আর অর্থ বরাদ্দ হবে না :দেবু টুডু


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: উন্নয়ন খাতে কোনো পঞ্চায়েতের টাকা পড়ে থাকলে সেই পঞ্চায়েতের জন্য আর অর্থ বরাদ্দ করা হবেনা। মুখ্যমন্ত্রীর জেলা সফরের আগে পূর্ব বর্ধমানের পঞ্চায়েতগুলিকে এমনই হুঁশিয়ারি দেওয়া হল জেলা প্রশাসনের তরফ থেকে। শুক্রবার বর্ধমান উন্নয়ন পর্ষদের সভাঘরে জেলার উন্নয়ন সম্পর্কিত এক বৈঠকে জেলা সভাধিপতি দেবু টুডু জেলার সমস্ত বিধায়কদেরও নির্দেশ দেন পঞ্চায়েত ভোটের আগে নিজ নিজ এলাকায় পঞ্চায়েতের কোনো টাকা যেন পড়ে না থাকে। তিনি উল্লেখ করেন, মার্চ মাসের মধ্যে সরকারি উন্নয়ন প্রকল্পের কোনো টাকা খরচ না করে পড়ে থাকলে সংশ্লিষ্ট পঞ্চায়েতের জন্য অর্থ বরাদ্দ বন্ধ করে দেওয়া হবে। পাশাপাশি নির্দেশ দেওয়া হয়েছে প্রত্যেকটি ব্লকভিত্তিক কি কি উন্নয়নমূলক কাজ করা হয়েছে তার তালিকা তৈরী করারও।


আগামী ২০ মার্চ বর্ধমানের সাই কমপ্লেক্সে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভা রয়েছে। এখন পুরোদমে চলছে সভার প্রস্তুতির কাজ। ইতিমধ্যে সভাস্থল পরিদর্শনও করেছেন সভাধিপতি দেবু টুডু। তাঁর সঙ্গে ছিলেন সহকারী সভাধিপতি শম্পা ধাড়াও। সভাধিপতি জানান,মুখ্যমন্ত্রীর সভায় এক লক্ষ লোক সমাগমের লক্ষ্যমাত্রা রাখা হয়েছে। তবে যেহেতু এখন মাধ্যমিক পরীক্ষা চলছে ,তাই লোক আনার জন্য পরীক্ষার্থীদের যাতে কোনোরকম অসুবিধা না হয় সেদিকেও সম্পূর্ণ খেয়াল রাখা হবে। এব্যাপারে প্রত্যেক মহকুমা শাসকদের কড়া নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলেও তিনি জানান।  

জেলাশাসক অনুরাগ শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন, ২০ মার্চ মুখ্যমন্ত্রী হেলিকপ্টারে সাই কমপ্লেক্সে আসবেন। তাঁর সভা ঘিরে চূড়ান্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী প্রথমে জনসভায় যোগ দেবেন। পরে
প্রশাসনিক সভা করবেন। জেলাশাসক জানান,মুখ্যমন্ত্রীর সভাতে যাতে এলাকার কোনো সমস্যার বিষয় উত্থাপিত না হয়, সে সম্পর্কেও এদিনের বৈঠকে সচেতন করে দেওয়া হয়েছে জেলার জনপ্রতিনিধিদের। তার আগে এদিনের বৈঠকে জেলার জনপ্রতিনিধিদের কাছ থেকে এলাকার
বিভিন্ন সমস্যার কথা শোনা হয়েছে।
                                                                                                                   ছবি - সুরজ প্রসাদ  
উন্নয়ন বাকি থাকলে সেই পঞ্চায়েতের জন্য আর অর্থ বরাদ্দ হবে না :দেবু টুডু
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top