728x90 AdSpace

Latest News

Thursday, 15 February 2018

রাজ্যে প্রথম বর্ধমানে চালু হল কন্যাসাথী প্রকল্প


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,পূর্ব বর্ধমান: বাল্যবিবাহ রদ করায় পূর্ব বর্ধমান জেলার কন্যাশ্রী ক্লাবের মেয়েদের বিশেষ সাহসিকতার পুরষ্কারের জন্য নাম পাঠানো হল মুখ্যমন্ত্রীর কাছে। বর্ধমানের কন্যাশ্রী প্রকল্পের আধিকারিক শারদ্বতী চৌধুরী জানিয়েছেন, সম্প্রতি বর্ধমানে মাটি উৎসবের উদ্বোধন করতে এসে মুখ্যমন্ত্রী কন্যাশ্রী ক্লাবের মেয়েদের এই সাহসিকতার জন্য তাদের পুরষ্কৃত করার কথা ঘোষণা করে যান। তিনি জানিয়েছেন, গত কয়েক মাসে ৬১টি কন্যাশ্রী ক্লাবের সদস্যরা মোট ৬৩৬টি বাল্যবিবাহ রদ করতে সক্ষম হয়েছে। খুব শীঘ্রই কলকাতায় মুখ্যমন্ত্রী এই কন্যাশ্রী মেয়েদের হাতে এই বিশেষ সাহসিকতার পুরষ্কার তুলে দেবেন।


এদিকে বৃহস্পতিবার গোটা রাজ্যের মধ্যে প্রথম পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন তথা কন্যাশ্রী প্রকল্পের উদ্যোগে সূচনা হল 'কন্যাসাথী ' প্রকল্পের। বর্ধমান সংস্কৃতি লোকমঞ্চে এই অনুষ্ঠানে ৫৮৪জন কন্যার হাতে তুলে দেওয়া হল বিজ্ঞানসম্মত স্যানিটারী ন্যাপকিন। 
এদিন অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন জেলা সভাধিপতি দেবু টুডু, জেলাশাসক অনুরাগ শ্রীবাস্তব, ডেপুটি সিএমওএইচ সুনেত্রা মজুমদার,বর্ধমান কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের সুপার নভিন কুজুর প্রমুখরাও।

শারদ্বতী চৌধুরী জানিয়েছেন, আগামী ২২ ফেব্রুয়ারী গোটা জেলা জুড়েই বাল্যবিবাহ রোধে কর্মসূচী নেওয়া হয়েছে। তিনি জানান, মূলত ঋতুমতী হওয়ার পর সংকোচ ও লজ্জাজনিত কারণে মেয়েরা
নানাবিধ সমস্যায় পড়ে। এই সমস্যা দূর করতেই তাদের বিজ্ঞানসম্মত ন্যাপকিন ব্যবহারের ওপর জোড় দেওয়া হয়েছে। আর এব্যাপারে কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারের বন্দিদের তৈরী ন্যাপকিন তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে।
                                                                                                             ছবি - সুরজ প্রসাদ 
রাজ্যে প্রথম বর্ধমানে চালু হল কন্যাসাথী প্রকল্প
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a comment

Top