728x90 AdSpace

Latest News

Tuesday, 1 October 2019

পুজোর মুখে বর্ধমানে যুবক খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালো


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: পুজোর মুখে খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালো বর্ধমান শহরের ৮নং ওয়ার্ডের নাড়ীকলোনীর অরবিন্দপল্লী এলাকায়। নিহত যুবকের নাম মানিক রায় (৩৮)। সে পেশায় টোটো চালক।

মৃতের পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, সোমবার সকালে বাড়ি থেকে মুড়ি খেয়ে বের হয়ে যায় মানিক তার বন্ধু এবং সরকারী কর্মী নন্দর সঙ্গে। কিন্তু রাতেও বাড়ি না ফেরায় নন্দর বাড়িতে খোঁজ করতে গিয়ে মা রীতা রায় দেখেন বাড়ির বাইরে মানিকের বন্ধু নন্দ এবং হাবলা বসে রয়েছে। মানিকের ব্যাপারে খোঁজ করলে তারা রীতাদেবীকে বাড়ি চলে যেতে বলেন। কিন্তু রীতাদেবীর সন্দেহ হওয়ায় তিনি বাড়ির পিছন দিকে গিয়ে দেখেন ঘরের মধ্যে মানিক পড়ে রয়েছে। এরপরই তিনি চিত্কার চেঁচামেচি শুরু করলে পালিয়ে যায় নন্দ। প্রতিবেশীরা ছুটে এসে হাবলাকে ধরে ফেলে। পুলিশকে খবর দেওয়া হলে পুলিশ এসে মানিক রায়ের মৃতদহ উদ্ধার করে।

রীতা দেবীর অভিযোগের ভিত্তিতে হাবলা ও সাহেব নামে দুই যুবককে আটক করেছে পুলিশ। মৃতদেহের গলায় দড়ির দাগ দেখতে পাওয়া গেছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। মৃত মানিক রায়ের মা রিতা দেবীর অভিযোগ,ছেলেকে খুন করা হয়েছে। এই মর্মে থানায় লিখিত অভিযোগ জানিয়েছেন রিতা দেবী।

মৃত মানিক রায়ের দিদি মনিকা রায় অভিযোগ করেছেন, নন্দ, হাবলা ওরা মাকে মিথ্যা কথা বলে ভাইয়ের মৃতদেহ লোপাট করার ষড়যন্ত্র করেছিল। তিনি অভিযোগ করেছেন ভাইকে খুন করা হয়েছে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, নন্দ সরকারি কোনো দপ্তরে কর্মরত আছেন। নন্দর বাড়িতে অন্য কেউ থাকে না। মানিক ও নন্দ দীর্ঘদিনের বন্ধু। প্রায়ই দুজনে একসঙ্গে মদ খেত। যদিও মানিকের মা এদিন জানিয়েছেন, সন্ধ্যার দিকে মানিক, নন্দর সঙ্গে পাড়ারই হাবলা আর সাহেবকে ঘুরতে দেখেছেন। পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে।
পুজোর মুখে বর্ধমানে যুবক খুনের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়ালো
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top