728x90 AdSpace

Latest News

Saturday, 5 October 2019

পুজো শুরুর আগে থেকে বিনা নোটিসে জেলা পশু হাসপাতাল বন্ধ, হয়রানির শিকার বহু


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: পুজোর সময়েও জনসাধারণের স্বার্থে রাজ্য সরকার অফিস চালু রাখার নির্দেশিকা জারী করেছেন। বিশেষত, জরুরী পরিষেবা প্রদানকারী দপ্তরগুলির অফিস চালু রাখার নির্দেশিকা রয়েছে। কিন্তু রাজ্য সরকারের নির্দেশকে পাত্তা না দিয়েই শুধু পুজোর মধ্যে ছুটি নয়, পুজো শুরুর 5 দিন আগে থেকেই বন্ধ করে দেওয়া হল পূর্ব বর্ধমান জেলা পশু হাসপাতাল। এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য দেখা দিয়েছে। 

জেলা পশু হাসপাতাল বন্ধের ঘটনায় রীতিমত ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন দূর দূরান্ত থেকে আসা মানুষজন। জানা গেছে, চলতি সপ্তাহের সোমবার থেকেই আচমকা বিনা নোটিশে বন্ধ করে দেওয়া হয় এই জেলা পশু হাসপাতাল। ফলে এদিন ছাগলের চিকিৎসা করাতে এসে ফিরে যান বর্ধমান শহরের খালাসিপাড়ার বাসিন্দা বৃদ্ধা বিভা মল্লিক। বিভা দেবী জানান, গত কয়েকদিন ধরে তার পোষ্য একটি ছাগল অনবরত মল ত্যাগ করেছে। ফলে খুবই দুর্বল হয়ে পড়েছে। তাই চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে এসেছিলেন। মূল গেটে তালা ঝুলছে দেখে ফিরে যেতে হচ্ছে। 

ছোটনীলপুর পীড়তলার বাসিন্দা সঞ্চায়ন ভট্টাচার্য এসেছিলেন তাঁর প্রিয় পোয্য খরগোশের পায়ে আঘাত জনিত কারণে চিকিৎসা করাতে। হাসপাতাল বন্ধ থাকায় তিনিও ফিরে গেলেন। তাদের প্রশ্ন, পুজোর সময় যদি মানুষের হাসপাতাল সচল থাকতে পারে, তাহলে অবলা পশুদের কেন নয়।

এব্যাপারে রাজ্যের প্রাণী সম্পদ বিকাশ দপ্তরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ জানিয়েছেন, 'পশু হাসপাতাল বন্ধ – খবর করে দিন'। জেলাশাসক বিজয় ভারতী জানিয়েছেন, গোটা বিষয়টি নিয়ে তিনি খোঁজ নিচ্ছেন। পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের প্রাণী সম্পদ বিকাশ বিভাগের কর্মাধ্যক্ষ মাম্পি রুদ্র জানিয়েছেন, এভাবে হাসপাতাল বন্ধ করা ঠিক নয়। কেন বন্ধ করা হয়েছে তিনি খোঁজ নিচ্ছেন। বর্ধমান জেলা প্রাণী সম্পদ বিকাশ দপ্তরের আধিকারিক ডা. বিপ্লব মণ্ডলকে এব্যাপারে বারবার ফোন করলেও তিনি ফোন ধরেননি।
পুজো শুরুর আগে থেকে বিনা নোটিসে জেলা পশু হাসপাতাল বন্ধ, হয়রানির শিকার বহু
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top