728x90 AdSpace

Latest News

Monday, 30 September 2019

১০৭ কিমি রাস্তা হাঁটার মজুরী প্রায় ৯ মাস ধরে বাকি,বিক্ষোভের পর হাতে টাকা পেলেন আদিবাসী শিল্পীরা


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমান: প্রায় ৯ মাস পর হাতে টাকা পেলেন আদিবাসী শিল্পীরা। দিনরাত এক করে ৪দিন ধরে ১০৭ কিমি রাস্তা হাঁটার মজুরী হিসাবে ৯ মাস ধরে টাকার জন্য ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন এই শিল্পীরা। গত ১৯ জানুয়ারী ঐতিহাসিক বিগ্রেডের সভায় প্রায় ১০৭ কিমি রাস্তা হাঁটলেও প্রতিশ্রুতিমত টাকা না পাওয়ায় সোমবার ব্যাপক ক্ষোভ প্রকাশ করলেন পূর্ব বর্ধমান জেলার আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষজন। এদিন বর্ধমান জেলার রাইপুর, বিজুর, মানকড়, আউশগ্রাম প্রভৃতি বিভিন্ন জায়গা থেকে কয়েকশো আদিবাসী মানুষ এসে পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদের সহকারী সভাধিপতি দেবু টুডুর কাছে বিক্ষোভ দেখান। 

তাঁরা দাবী করেছেন, দীর্ঘদিন ধরেই তাঁরা টাকার জন্য হন্যে হয়ে ঘুরছেন। বিজুর থেকে আসা ষষ্ঠী সোরেন, চানক মাণ্ডি প্রমুখরা জানিয়েছে্ন, গত ১৯ জানুয়ারী তৃণমূল কংগ্রেসের ডাকে বিগ্রেডে সমাবেশ ছিল। সেই সমাবেশে আদিবাসী মানুষ এবং বিশেষত আদিবাসী শিল্পীদের নিয়ে যাবার জন্য জেলা পরিষদের সহকারী সভাধিপতি তথা আদিবাসী সেলের নেতার দেবু টুডু তাঁদের আমন্ত্রণ জানান। দুর্গাপুরের কাঁকসা থেকে শুরু হয় পদযাত্রায়। তাঁরা জানিয়েছেন, প্রায়ে সাড়ে ৬৫০ আদিবাসী মানুষ তাতে অংশ নেন। ১৬ জানুয়ারী কাঁকসা থেকে নাচতে নাচতে তাঁরা পদযাত্রার মাধ্যমে ১৯ তারিখে বিগ্রেডে গিয়ে হাজির হন। তাঁদের জানানো হয়েছিল অংশগ্রহণকারীদের প্রত্যেককে ১ হাজার টাকা করে প্রতিদিন দেওয়া হবে। তাঁরা ৪দিন হেঁটে বিগ্রেডে গেছিলেন। তাই তাঁদের প্রত্যেকের ৪ হাজার টাকা করে প্রাপ্য ছিল। 

কিন্তু দিনের পর দিন তাঁদের টাকা দেওয়ার জন্য ঘোরানো হচ্ছিল। এদিকে পুজো এসে গেল, তাই বাধ্য হয়েই তাঁরা বেশ কয়েকবার ঘুরেও টাকা না পাওয়ায় মঙ্গলবার জেলা পরিষদে হাজির হয়েছেন। এদিকে, এদিন এই ক্ষোভের বিষয়টি জানতে পারার পরই দেবু টুডু দ্রুততার সঙ্গে তাদের টাকা দেবার ব্যবস্থা করেন। জানা গেছে, প্রায় ৫ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা এদিন দেওয়া হয়। এব্যাপারে দেবু টুডু জানিয়েছেন, ওই আদিবাসী শিল্পীদের নির্দিষ্ট তারিখে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু তার আগেই এদিন তারা চলে আসে। সামনেই পুজো। তাই নির্দিষ্ট সময়ের আগেই তাদের প্রাপ্য টাকা দেওয়া হয়।
১০৭ কিমি রাস্তা হাঁটার মজুরী প্রায় ৯ মাস ধরে বাকি,বিক্ষোভের পর হাতে টাকা পেলেন আদিবাসী শিল্পীরা
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top