728x90 AdSpace

Latest News

Tuesday, 6 August 2019

বর্ধমান ষ্টেশনে ভয়াবহ বিস্ফোরণের হাত থেকে বাঁচল এক শিশু



ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,বর্ধমানঃ বিজেপি এবং তৃণমূলের দখলদারীতে অস্ত্রের আস্ফালনে অল্পের জন্য প্রাণে বাঁচল এক শিশু সহ অগণিত মানুষ। মঙ্গলবার সকাল থেকেই বর্ধমান ষ্টেশন এলাকাকে দখল নিতে নামে বিজেপি। বিজেপি নেতা খোকন সেনের নেতৃ্ত্বে বিজেপির সমর্থকরা এদিন কৌশলে ষ্টেশন এলাকায় জমায়েত করতে থাকে। পরিস্থিতি ক্রমশই উত্তপ্ত হতে শুরু করে দুপুর থেকেই। দুপক্ষই অস্ত্র নিয়ে সম্মুখ সমরের জন্য তৈরী হয়।

 এদিকে, এই যখন পরিস্থিতি সেই সময় বর্ধমান ষ্টেশনের আরএমএসের সামনে একটি মোটরবাইকের নিচ থেকে উদ্ধার হয় একটি তাজা কৌটো বোমা। যা নিয়ে রীতিমত আতংক ছড়ায়। পরে বর্ধমান ষ্টেশনের জিআরপি কৌটো বোমাকে জল ঢেলে নিষ্ক্রিয় করেন। এদিন বর্ধমান ষ্টেশনের আরএমএসের পাশে থাকা একটি হোটেলের মহিলা কর্মী জানিয়েছেন, মোটরবাইকের নিচে রাখা ওই কৌটো বোমাটি ষ্টেশনে থাকা ভবঘুরে এক বাচ্চা শিশু প্রথমে দেখতে পায়। সঙ্গে সঙ্গে সে কৌটো বোমাটি হাতে নিয়ে তার ঢাকনাও খুলে ফেলে। ওই মহিলা জানিয়েছেন, বিষয়টি দেখতে পেয়ে কয়েকজন শিশুটিকে কৌটোটিকে রেখে দেবার কথা বলতেই সে সাবধানে কৌটোটিকে মাটিতে নামিয়ে রেখে পালিয়ে যায়। তবে কারা ওই শিশুকে কৌটোটি রাখার কথা বলেছিলেন তাদের তিনি চেনেন না। 

এদিকে, বিষয়টি সংবাদ মাধ্যমের নজরে আসার পর পুলিশকে জানালে রেলের জিআরপি কৌটো বোমাটিকে উদ্ধার করে সাবধানে এক পাশে নিয়ে যান। সেখানেই জল ঢালা হয় কৌটোয়। এরপরই হু হু করে কৌটো থেকে বেড়িয়ে আসে বারুদ এবং তার মধ্যে থাকা পাথরের কুচি সহ আরও অনেক কিছুই। পুলিশ জানিয়েছে, রীতিমত কপাল জোরেই আজ ওই শিশুর প্রাণরক্ষা হয়েছে। খেলার ছলে হাত থেকে পড়ে গেলেই ভয়াবহ বিস্ফোরণ ঘটতে পারত। যাতে সাধারণ মানুষও আহত হতে পারতেন। তবে কারা এই কৌটো বোমা মজুদ করেছিল এদিন তা কেউই স্বীকার করেননি। 

অপরদিকে, অতি ব্যস্ততম বর্ধমান ষ্টেশন এলাকায় এদিন রাজনৈতিক দুপক্ষের জমায়েত, উত্তেজনা, অস্ত্র বারুদ নিয়ে লাফালাফির ঘটনায় উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবার কথা জানিয়েছেন, বর্ধমান ষ্টেশন ম্যানেজার স্বপন অধিকারী। তিনি জানিয়েছেন, এব্যাপারে জিআরপি এবং আরপিএফ উভয়কেই চিঠি দিয়ে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবার কথা জানানো হয়েছে। কৌটো বো্মা সম্পর্কে তিনি জানিয়েছেন, এই ঘটনার কথা তিনি শোনেননি। তবে এরকম ঘটনা ঘটলে তা সত্যিই দুশ্চিন্তার। তিনি এদিন জানিয়েছেন, বর্ধমান ষ্টেশনের সাইকেল বা টোটো স্ট্যাণ্ড রেলওয়ে অনুমোদিত হলেও কোনো স্টল অনুমোদিত নয়। এব্যাপারে মাঝেই মাঝেই তা উচ্ছেদও করা হয়। তিনি জানিয়েছেন, বর্ধমান ষ্টেশন সহ কয়েকটি ষ্টেশনের জবরদখল মুক্ত করার বিষয়টি রাজ্যের চীফ সেক্রেটারীরকে জানানো হয়েছে। কিন্তু এখনও সেখান থেকে কোনো উত্তর আসেনি।
বর্ধমান ষ্টেশনে ভয়াবহ বিস্ফোরণের হাত থেকে বাঁচল এক শিশু
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top