728x90 AdSpace

Latest News

Wednesday, 3 October 2018

বর্ধমানে পরিবহণ দপ্তরের অফিসারের অশ্লীল দাবীর শিকার যুবতী, অভিযোগ দায়ের


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক, বর্ধমানঃ লাইসেন্স করাতে এসে পূর্ব বর্ধমানের জেলা পরিবহণ দপ্তরের এক মোটর ভেহিকেলস্ ইন্সপেক্টরের কাছ থেকে দুর্ব্যবহারের শিকার হলেন এক যুবতী। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে বুধবার দুপুর থেকে তীব্র চাঞ্চল্য দেখা দেয় পরিবহণ দপ্তরে। দপ্তরে আসা সাধারণ মানুষ ওই অফিসারের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করেছেন। 

3জেলা পরিবহণ আধিকারিক রাণা বিশ্বাস জানিয়েছেন, তিনি এব্যাপারে একটি অভিযোগ পেয়েছেন। অভিযোগের বিষয়ে বিভাগীয় তদন্ত শুরু হয়েছে। অন্যদিকে, জেলাশাসক অনুরাগ শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন, এই ধরণের একটি অভিযোগ এসেছে। অভিযোগের সত্যতা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অভিযোগের সত্যতা প্রমাণিত হলে ওই অফিসারের বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

অন্যদিকে, এদিন ওই যুবতী জানিয়েছেন, তিনি দুচাকা গাড়ির লাইসেন্স করাতে জেলা পরিবহণ দপ্তরে আসেন। এর আগে প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমাও দেন। এরপর সম্প্রতি তিনি ওই মোটর ভেহিকেলস ইন্সপেক্টরের কাউন্টারে আসলে তাঁর কাছ থেকে তাঁর মোবাইল ফোন নাম্বার, হোয়াটস্ অ্যাপ নাম্বার চাওয়া হয়। তিনি তা দেনও। কিন্তু এরপরই তাঁর নাম্বারে ওই ইন্সপেক্টর পাপ্পু রায় তাঁকে অশ্লীল মেসেজ পাঠাতে শুরু করেন। বুধবার তাঁকে ফোন করে তাঁর লাইসেন্সটি নিয়ে যাবার কথা বলার পাশাপাশি তাঁকে অশ্লীল ভাষায় কিছু প্রস্তাব দেন। ওই যুবতী এবং তাঁর সঙ্গী এদিন নালিশ করেছেন, এদিন যথারীতি তাঁরা ওই ইন্সপেক্টরের কাউণ্টারে এসে লাইসেন্সটি চাইলে তিনি তা দিতে অস্বীকার করেন। আর এরপরই রীতিমত ধুন্ধুমার বেধে যায়। পাপ্পু রায়ের এই আচরণের ঘটনায় এদিন ওই যুবতী লিখিতভাবে অভিযোগ দায়ের করেন জেলা পরিবহণ আধিকারিকের কাছে। 

এদিকে, এই ঘটনায় অভিযুক্ত পাপ্পু রায়কে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি কিছু বলতে চাননি। কার্যত মিডিয়াকে এড়াতে তিনি অন্য দরজা দিয়ে পালিয়ে যান। জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, এদিন এই ঘটনার পরই জেলা পরিবহণ দপ্তরের দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত জেলাশাসক ডেকে পাঠান ওই অফিসারকে।
বর্ধমানে পরিবহণ দপ্তরের অফিসারের অশ্লীল দাবীর শিকার যুবতী, অভিযোগ দায়ের
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top