728x90 AdSpace

Latest News

Thursday, 26 July 2018

পণের টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ শিক্ষকের বিরুদ্ধে



ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,জলপাইগুড়িঃ শ্বশুরবাড়ি থেকে পণের টাকা না পাওয়ায় নিজের স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ উঠল এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত শিক্ষকের নাম মিন্টু মিয়াঁ। তিনি তুফানগঞ্জের ফলিমারি হাই স্কুলের শিক্ষক। আক্রান্ত স্ত্রীর নাম পারভিন বিবি। ঘটনাটি ঘটেছে  গত মঙ্গলবার জলপাইগুড়ির সদর ব্লকের বাহাদুরপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের জয়ের কামাত এলাকায়। এই ঘটনায় বৃহস্পতিবার জলপাইগুড়ি মহিলা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলেন আক্রান্ত পারভিন বিবি। মিন্টু মিঞা সহ পরিবারের সকলের কঠোর শাস্তির দাবি জানিয়েছে বিবির পরিবার।

পারভিনের আব্বা নজরুল ইসলাম জানান, বিয়ের আগে আড়াই লক্ষ টাকার কথা বলে নিকাহ ঠিক হয়েছিল, কিন্তু পরে ছেলের বাড়ি থেকে ১৩ লক্ষ টাকা দাবি করা হয়। এই টাকা দিতে না পারায় তার মেয়ের উপর লাগাতার অত্যাচার শুরু করে মিন্টু সহ তার পরিবারের অনান্যরাও। শারিরিক ও মানসিক ভাবে অত্যাচার শুরু হয়, এমনকি খাবারতো দূরের কথা জল পর্যন্ত মেয়েকে দিত না তারা। এরপর গত মঙ্গলবার সকাল থেকে অত্যাচারের পরিমান বাড়তে থাকে। সন্ধ্যার দিকে অত্যাচার চরমে ওঠে। কেরোসিন তেল গায়ে ঢেলে পারভিনকে মেরে ফেলার চক্রান্ত করে মিন্টু সহ মিন্টুর বাড়ির লোকজন। 

পারভিন জানান, কোনক্রমে লুকিয়ে প্রানে বাঁচিয়ে বাপের বাড়িতে ফোন করলে পরিবারের লোকেরা এসে তাকে উদ্ধার করে। এবং সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ভর্তি করান। গতকাল হাসপাতাল থেকে ছুটি পেয়ে থানায় এসে অভিযোগ দায়ের করেন পারভিন। তিনি জানান, তার মত আর কাউকে যেন ঠকাতে না পারে, এই কারনেই অভিযোগ। 

অন্যদিকে অভিযুক্ত মিন্টুর সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তাকে পাওয়া যায় নি। জলপাইগুড়ি মহিলা থানার ওসি উপাসনা গুরুং জানিয়েছেন, অভিযোগ পাওয়ার পরেই তদন্ত শুরু করা হয়েছে।
পণের টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার অভিযোগ শিক্ষকের বিরুদ্ধে
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top