728x90 AdSpace

Latest News

Saturday, 28 July 2018

দেবদাসের কালেই থেমে আছে হাতিপোঁতা


ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক,কালনাঃ হাতিপোঁতা গ্রাম। এই গ্রামের নাম আজ বাঙ্গালীর খুব পরিচিত। কারন কথা শিল্পী শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের কালজয়ী উপন্যাস 'দেবদাস' এর বেশ কিছু স্মৃতি এই গ্রামের সঙ্গে অতপ্রত ভাবে জড়িয়ে আছে। কালনা থানার নান্দাই গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত এই গ্রামটির আজ অনেক কিছুরই পরিবর্তন ঘটে গেছে। কিন্তু আজও পর্যন্ত কোন পরিবর্তন ঘটেনি এই গ্রামের রাস্তার। দেবদাসের কালেই থেমে আছে তার অবস্থা। ডিজিট্যাল প্রযুক্তির যুগে এসেও এই গ্রামের রাস্তা দিয়ে হাঁটাই যায় না বলে অভিযোগ গ্রামবাসীদের।  

তাহলে দেবদাসের যুগে রাস্তাঘাট কেমন ছিল? কথাশিল্পী শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের বিবরণ থেকেই তুলে দেওয়া হল সেই সময়ের রাস্তার অবস্থার। 


"পাণ্ডূয়া ষ্টেশনে আসিয়া উপস্থিত হইল। দেবদাস স্টেশনের বাহিরে আসিল। এক ঘোড়ার গাড়ির গারোয়ানকে ডাকিয়া কহিল বাপু, হাতিপোতায় নিয়ে যেতে পারবে ? গারোয়ান কহিল -- না বাবু রাস্তা ভালো নয়। ঘোড়ার গাড়ি বর্ষায় ওখানে যেতে পারবে না। দেবদাস উদ্বিগ্ন হইয়া প্রশ্ন করিল, পালকি পাওয়া যায় ? গারোয়ান বলিল, না। গারোয়ান কহিল, বাবু, একটা গরুর গাড়ি ঠিক করে দেব ? কতক্ষনে পৌঁছাবে ? গারোয়ান কহিল, রাস্তা ঘাট ভালো নয়, বোধ হয় দিন দুই লেগে যাবে, দেবদাস গরুর গাড়িতে উঠিয়ে বসিল। পথ ভালো নয়। বর্ষার জল কোথাও পথের মাঝে জমিয়ে আছে। কোথাও বা পথ ভাঙিয়া গিয়াছে। কাদায় সমস্ত রাস্তা পরিপূর্ন। গরুর গাড়ি হটর হটর করিয়া চলিল। কোথাও নামিয়া চাকা ঠেলিতে হইল, কোথাও গরু দুটোকে নির্দয়ভাবে প্রহার করিতে হইল - যেমন করিয়াই হোক ষোল ক্রোশ পথ অতিক্রম করতেই হইবে"।


এটাই হল তখনকার দিনে পাণ্ডূয়া থেকে হাতীপোঁতা আসার পথ ঘাটের অবস্থা। আর আজ এই আধুনিক গতিময়তার জুগেও সেই অবস্থার বিশেষ কিছুই পরিবর্তন ঘটেনি। অতীত আর বর্তমান এখানে মিলেমিশে একাকার। 

বটতলা থেকে হাতিপোঁতা দেবদাস প্রাথমিক স্কুল পর্যন্ত রাস্তা প্রায় চলাচলের অযোগ্য। হাতিপোঁতা গ্রামের রাস্তারও অবস্থা খুবই ভয়াবহ, সেকথা স্বীকার করে নিয়েছেন - হাতিপোঁতা দেবদাস স্মৃতি সংঘের সম্পাদক তথা নান্দাই গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন প্রধান আরজেদ শেখ । 

তিনি জানান -পঁচিশ লক্ষ টাকার একটি ইকো পার্ক এবং গ্রামের রাস্তাটি নির্মাণ করার জন্য প্রকল্প জমা দেওয়া আছে । কিছু ঘ্যাস ফেলে গ্রামের রাস্তাটি আপাতত মেরামত করা হবে।


দেবদাসের কালেই থেমে আছে হাতিপোঁতা
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top