728x90 AdSpace

Latest News

Sunday, 27 May 2018

খণ্ডঘোষে খেলতে গিয়ে মৃত্যু ক্রিকেটারের

ফোকাস বেঙ্গল ডেস্ক, খণ্ডঘোষঃ গ্রামীণ ক্রিকেট প্রতিযোগিতায় খেলতে গিয়ে মাঠেই প্রাণ হারাল বি.এ. দ্বিতীয় বর্ষের এক ছাত্র। রবিবার মর্মান্তিক এই ঘটনা ঘটেছে বর্ধমানের খণ্ডঘোষ থানার কৈয়ড় গ্রামে। মৃত ছাত্রের নাম অভিজিত সাঁতরা ওরফে বাবাই (২০)। বাড়ি কৈয়ড় গ্রামেই। 

মৃতের ভাই শুভজিত সাঁতরা জানিয়েছেন, তাঁর দাদা রায়নার শ্যামসুন্দর কলেজের বি.এ. দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র ছিল। পড়াশোনার পাশাপাশি সে একটি প্যথলজিক্যাল ল্যাবেও কাজ করত। গত প্রায় ৭ বছর ধরেই কৈয়ড় গ্রামে এই একদিবসীয় ক্রিকেট প্রতিযোগিতা হয়ে আসছে। ক্রমশই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল এই প্রতিযোগিতা। এবছরও ২৪টি দল নাম লিখিয়েছিল। চ্যাম্পিয়ন এর  ৪০০১ টাকা এবং রানার্স ৩০০১ টাকা পুরষ্কার ছাড়াও দেওয়ার কথা ছিল আয়োজক লক্ষ্মীনায়ারণ ক্লাবের লক্ষ্মীনায়ারণ শিল্ড। 

স্থানীয় সুত্রে জানা গেছে, এদিন দুপুর ১টা নাগাদ খেলা চলছিল বড়গোপীনাথপুর জয়গুরু ক্লাবের সঙ্গে কৈয়ড় পশ্চিমপাড়া নিউ স্টার ক্লাবের। ব্যাট করছিল বড়গোপীনাথপুর জয়গুরু ক্লাব। দুপুর ১টা নাগাদ ব্যাটসম্যান খুব জোরে একটি বল মারেন ছক্কার উদ্দেশ্যে। কিন্তু মাঠের বাইরে না গিয়ে বল ওপরে উঠে যায়। আর ক্যাচ ধরতে ছুটে যায় অভিজিত সাঁতরা এবং রানা রায় নামে দুজন ফিল্ডার। দুজনেই বল ধরার জন্য একইসঙ্গে লাফালে রানার মাথা গিয়ে সজোরে লাগে অভিজিতের বুকে। তুলনায় অভিজিতের থেকে রানার উচ্চতা বেশী হওয়ার জন্যই এই ঘটনা ঘটে। বুকে আঘাত লাগার সঙ্গে সঙ্গে অভিজিত মাঠেই লুটিয়ে পড়েন। সঙ্গে সঙ্গে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় স্থানীয় এক চিকিৎসকের কাছে। সেখান থেকে খণ্ডঘোষের একটি নার্সিংহোমে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। 

এই ঘটনার পরই বন্ধ হয়ে যায় খেলা। ঘটনার ভয়াবহতায় প্রতিযোগিতার উদ্যোক্তারা প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই গা ঢাকা দেন । এদিকে আকস্মিক এই ঘটনায় পরেই মৃতের পরিবারের পাশাপাশি গোটা এলাকায় তীব্র শোকের ছায়া নেমে এসেছে। মৃতের ভাই শুভজিত সাঁতরা জানিয়েছেন, খেলতে খেলতে এই দুর্ঘটনায় ঘটেছে, তাই এখনও তাঁরা কোনো অভিযোগের কথা ভাবেননি। 

খণ্ডঘোষে খেলতে গিয়ে মৃত্যু ক্রিকেটারের
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top