728x90 AdSpace

Latest News

Tuesday, 5 September 2017

আজ মানুষ গড়ার কারিগরদের সন্মান জানানোর দিন,শিক্ষক দিবস।

ফোকাস বেঙ্গল ডেস্কঃ আজ শিক্ষক দিবস। এ কথা অনস্বীকার্য যে একজন সফল মানুষের পিছনে শিক্ষকদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা থাকে। শিক্ষক যে শুধুমাত্র পড়াশোনার জন্য, তাই নয় তিনি থাকতে পারেন জীবনে সব ক্ষেত্রেই। তিনি যে শুধু শিক্ষা দেবেন তাই নয়,জীবনে চলার পথে সঠিক রাস্তায় এগিয়ে যেতে তিনি পরামর্শ দেবেন। ব্যার্থতায় পাশে দাঁড়িয়ে উৎসাহ দেবেন,সাফল্যের দিনে নতুন লক্ষ্য স্থির করে দেবেন। তিনি শুধু একজন ভালো মানুষই নন জীবনের লক্ষ্য স্থির তিনিই করে দেবেন। অর্থাৎ শিক্ষক হচ্ছেন একটি দীপকের মত যিনি নিজেকে ধীরে ধীরে নিঃশেষিত করে অপরের চলার পথকে আলোকিত করেন।
সমগ্র বিশ্ব জুড়ে অগুনিত শিক্ষক শিক্ষিকাদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জ্ঞাপনের জন্য তাঁদের পেশাগত অবদানকে স্মরণে বরণে পালন করার জন্য বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ভিন্ন ভিন্ন দিনে মহান শিক্ষক দিবস পালনের রীতি বিদ্যমান আছে। আন্তর্জাতিক স্তরে ইউনিসকোর পক্ষ থেকে ৫অক্টবর দিনটিকে বিশ্ব শিক্ষক দিবসের স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশ,পাকিস্তান,জার্মানি,ইংল্যান্ড সহ বিশ্বে প্রায় ১৯টি দেশে ৫অক্টবর দিনটিতে টিচার্স ডে অথবা শিক্ষক দিবস পালন করা হয়। আবার মরোক্ক,লিবিয়া,সৌদি আরব,ওমান,নাইজেরিয়া সহ প্রায় ১১টি দেশে ২৮ফেব্রুয়ারী দিনটি শিক্ষক দিবস হিসাবে পালন করা হয়। আমেরিকায় শিক্ষক দিবস পালিত হয় মে মাসের প্রথম সপ্তাহে। আর্জেন্টিনায় শিক্ষক দিবস পালিত হয় ১১সেপ্টেম্বর। আমাদের দেশে ৫সেপ্টেম্বর এই দিনটিতে বিশেষ মর্যাদার সঙ্গে শিক্ষক দিবস পালিত হয়ে আসছে। 
বলাবাহুল্য যে মহান ব্যাক্তির জন্মদিন উপলক্ষে ৫সেপ্টেম্বর দিনটিতে আমাদের দেশে শিক্ষক দিবস পালিত হয়ে আসছে তিনি আর কেউ নন, তিনি ভারতের প্রথম উপরাষ্ট্রপতি ড.সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণন। ভারতরত্ন উপাধিতে বিভূষিত এই প্রখ্যাত শিক্ষাবিদ শুধুমাত্র মহান শিক্ষকই ছিলেন না,তিনি ছিলেন অসাধারণ এক বাগ্মী রাজনীতিবিদ। একজন মহান দার্শনিক। শোনা যায় ১৯৬২ সালে রাষ্ট্রপতি হওয়ার পর তাঁর গুণমুগ্ধ ছাত্রছাত্রীরা তার জন্মদিন পালন করতে চাইলে তিনি বলেন,জন্মদিন পালনের পরিবর্তে ৫সেপ্টেম্বর দিনটি যদি দেশের সমস্ত শিক্ষকদের উদেশ্যে পালিত হয়,তবে তিনি গর্ব বোধ করবেন। সেই থেকে দেশের সমস্ত স্কুল কলেজে নানান অনুষ্ঠানের মধ্যে দিয়ে পালিত হয়ে আসছে শিক্ষক দিবস।
শিক্ষক দিবস - এই বিশেষ দিনটির তাৎপর্য এই যে,একজন শিক্ষকই পারেন তাঁর ছাত্রের মধ্যে যথাযথ মনন,বুদ্ধি ও  চিন্তার বাস্তব রূপ প্রতিফলিত করতে। এই চির সত্যকে মান্যতা প্রদান করাই এই দিনটির মূল তাৎপর্য। বস্তুত একজন যোগ্য ছাত্র বা ছাত্রীর জীবনে একজন শিক্ষকের প্রভাব খুবই গুরুত্বপূর্ণ। একজন শিক্ষকই পারেন তাঁর ছাত্রকে আদর্শগত ভাবে রূপান্তরিত করে দিতে। সমাজের উপযুক্ত সৎ নাগরিক হিসাবে তাঁর ছাত্রকে সম্পদে পরিণত করাই একজন শিক্ষকের মূল ব্রত। মানুষ গড়ার কারিগর হিসাবে সমাজে একমাত্র প্রতিনিধি হলেন শিক্ষক। 
তাই সুস্থ সমাজ গড়ে তুলতে ফোকাস বেঙ্গল (অনলাইন নিউজ পোর্টাল ) এর পক্ষ থেকে শিক্ষককূলকে জানাই বিনম্র শ্রদ্ধা ও প্রণাম। 
আজ মানুষ গড়ার কারিগরদের সন্মান জানানোর দিন,শিক্ষক দিবস।
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top