728x90 AdSpace

Latest News

Wednesday, 6 September 2017

খেয়েছেন নাকি খেজুর গুড়ের আইসক্রিম? চলে আসুন 'মিষ্টির রান্নাঘরে'।

সৌরীশ দে,বর্ধমান: সুখবর,কলকাতার পর এবার বর্ধমানেও থিম রেস্টুরেন্ট। একেবারে আদ্যপ্রান্ত সাবেকিয়ানায় মোড়া। চেয়ার-টেবিল,চারপাশের দেওয়াল থেকে শুরু করে আলো - এমনকি আবহ সংগীতের মধ্যেও এই রেস্টুরেন্টে আপনি খেতে এসে ফিরে পাবেন 'অভিজ্ঞান শকুন্তলম' এর পরিবেশ। 
না,অবাক হওয়ার কিছু নেই। আর মাত্র কয়েকটা দিনের অপেক্ষা। পবিত্র মহালয়ার দিন ভোজনরসিক বর্ধমানবাসীর জন্য খুলে যাচ্ছে "মিষ্টির রান্নাঘর"। পরিচিত স্বাদের বাইরে এই প্রথম শহরবাসী এক ভিন্ন স্বাদের রসনা তৃপ্তির আনন্দ উপভোগ করবেন 'মিষ্টির রান্নাঘরে। ' তাই বলাইবাহুল্য পুজোর আগে 'মিষ্টির রান্নাঘর' বর্ধমানবাসীর কাছে শারদ উপহার।
দেশ বিদেশের বিখ্যাত হোটেল ও রেস্তোরাঁর নামজাদা বাবুর্চিরা এসেছেন মনমাতানো দেশি-বিদেশী রেসিপি পরিবেশনের জন্য। সকালে যেমন তাদের হাতে তৈরী করা সম্পূর্ণ বাঙালি খাবার খাওয়ার স্বাদ উপভোগ করতে পারবেন এখানে,অন্যদিকে বিকেল পর এখানেই পাওয়া যাবে ইন্ডিয়ান,তন্দুর,চাইনিজ,ইতালিয়ান সহ সমস্ত রকম দেশ-বিদেশের রেসিপি। 
তবে অবাক করার বিষয় এই যে,শহর বর্ধমানে সম্ভবতঃ প্রথম কোনো রেস্টুরেন্টে ডায়বেটিক,সুগারের মতো রোগে আক্রান্ত ভোজনরসিক মানুষদের জন্যও সুস্বাদু অথচ ক্ষতিকারক নয় এমন নানান পদের আয়োজন রাখা হচ্ছে। অর্থাৎ এখন থেকে নির্ভয়ে এবং সাচ্ছন্দে এই ধরণের রোগে আক্ৰান্ত মানুষরাও রসনা তৃপ্তির নতুন ঠিকানা খুঁজে পাবেন বলে দাবি করেছেন 'মিষ্টির রান্নাঘরের' মালকিন মিষ্টি রায় চৌধুরী।
শুধু কি তাই,বাচ্চাদের পছন্দের নানান স্বাদের খাবারও পাওয়া যাবে এখানে। কারণ অনেক বাচ্চাই বড়দের পছন্দের ঝাল,মশলাদার রেসিপি পছন্দ করে না। তাই ওদের কথা ভেবেই আলাদা করে এই চিন্তা ভাবনা বলে মিষ্টি জানিয়েছেন।
তিনি আরও দাবি করেছেন,বর্ধমানের ভোজন রসিক মানুষ এতদিন শুনতেন,জানতেন কিন্তু হাতের কাছে জিভে জল আনা অনেক খাবারের স্বাদ উপভোগ করতে পারতেন না - 'মিষ্টির রান্নাঘর' সেই অভাব মিটিয়ে দিতে চলেছে। উদাহরণস্বরূপ মিষ্টি জানিয়েছেন,আইসক্রিম তো অনেক রেস্তোরাঁতেই পাওয়া যায়, কিন্তু খেজুর গুড়ের আইসক্রিমের স্বাদ বর্ধমানে অমিল। শুধুমাত্র এই আইসক্রিম খাওয়ার জন্য অনেকেই কলকাতার ভজহরি মান্না অথবা ৬ বালিগঞ্জে ছুতে যান। কিন্তু আর না। এখন মিষ্টির রান্নাঘরেই পাবেন খেজুর গুড়ের আইসক্রিম,আমের আইসক্রিম,ডাবের শরবত,আম পোড়া শরবত। শুধু তাই নয়,বাঙালির প্রিয় রসগোল্লা,পান্তুয়া,ক্ষীরের মিষ্টিও পাবেন এই রান্নাঘরে। এক্ষেত্রেও নজর রাখা হয়েছে সুগার পেসেন্টদের দিকে।
মোট কথা রসনা তৃপ্তির শেষে বাঙালির পাতে একটু মিষ্টি না হলে কি মানায় ! ও হ্যা,যে সুবিধার কথাটা না জানালে রান্নাঘর অসম্পূর্ণ থেকে যাবে সেটা হলো এখন আপনি ঘরে বসেই নানান স্বাদের সমস্ত খাবার পেয়ে যাবেন একটা ফোন করেই।'মিষ্টির রান্নাঘর' কতৃপক্ষ দ্রুত আপনার বাড়িতেই পৌঁছে দেবে আপনার পছন্দের অর্ডার। সবমিলিয়ে 'মিষ্টির রান্নাঘর' যে বাঙালিয়ানা,সাবেকিয়ানার মেলবন্ধনে বর্ধমানবাসীর কাছে নতুন স্বাদের এক ঠিকানা হতে চলেছে, তা এক কোথায় স্বীকার করেই নেওয়া যায়।



খেয়েছেন নাকি খেজুর গুড়ের আইসক্রিম? চলে আসুন 'মিষ্টির রান্নাঘরে'।
  • Blogger Comments
  • Facebook Comments

0 comments:

Post a Comment

Top